891
page-template,page-template-full_width,page-template-full_width-php,page,page-id-891,page-child,parent-pageid-646,stockholm-core-1.0.0,select-theme-ver-5.0.6,ajax_fade,page_not_loaded,wpb-js-composer js-comp-ver-5.5.5,vc_responsive

রাশীদুল হাসান

জন্ম – ১ নভেম্বর, ১৯৩২

“শাণিত কথার ঝলসানি লাগা সতেজ ভাষণ যাঁর”

রাশীদুল হাসান  ১ নভেম্বর, ১৯৩২ সালে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বীরভূম জেলার বড়শিজা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

দেশভাগের পর ১৯৪৯ সালে তিনি পূর্ব পাকিস্তান চলে আসেন। ঢাকার ইসলামিয়া ইন্টারমিডিয়েট কলেজ থেকে আই.এ. পাশ করেন। এরপর তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজিতে ১৯৫২ সালে বি.এ. এবং ১৯৫৪ সালে এমএ ডিগ্রি অর্জন করেন।

তিনি তাঁর কর্মজীবন শুরু করেন নরসিংদী কলেজে শিক্ষকতা শুরুর মধ্য দিয়ে। দেশের নানা জায়গায় শিক্ষকতা করে তিনি ১৯৬৭ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি বিভাগে প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন। রাজনীতির সাথে জড়িত না থাকলেও তিনি ছিলেন রাজনীতি সচেতন একজন মানুষ। তিনি তাঁর প্রতিটি ক্লাসে ন্যায় বিচারের অধিকার আদায় নিয়ে তাঁর ছাত্রদের উজ্জীবিত করতেন। এই অপরাধে তৎকালীন পাকিস্তান গোয়েন্দা কয়েকজন সদস্য তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ধরে নিয়ে যায়। এই যাত্রায় তিনি ফিরে আসেন।

১৯৭১ সালে ১৪ ডিসেম্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী তাঁকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপর শিক্ষক আনোয়ার পাশার বাসা থেকে ধরে নিয়ে যায়। প্রায় বিশ দিন পর মিরপুরের বধ্যভূমি থেকে অন্যান্য বুদ্ধিজীবীদের সাথে তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। সমাহিত করা হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মসজিদের পাশে।

পবিত্র আযানের প্রতিটি শব্দ তাকে শান্তি দান করুন।