Martyred Intellectuals | ডা. হাসিময় হাজরা
904
page-template,page-template-full_width,page-template-full_width-php,page,page-id-904,page-child,parent-pageid-646,ajax_fade,page_not_loaded,,select-theme-ver-4.6,wpb-js-composer js-comp-ver-5.5.5,vc_responsive

ডা. হাসিময় হাজরা

জন্ম – ২৩ জানুয়ারি, ১৯৪৬

“সদা হাস্যোজ্জ্বল আর্তের সেবক”

ডা. হাসিময় হাজরার জন্ম ১৯৪৬ সালের ২৩শে জানুয়ারি। বাবা অনন্ত মাধব হাজরা ঢাকেশ্বরী মিলের ডাক্তার ছিলেন। আর সে সূত্রেই তিনি মিলের স্কুল থেকে মাধ্যমিক পাশ করেন। নারায়ণগঞ্জের তোলারাম কলেজ থেকে আইএসবি ও ১৯৭০ সালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেন।

ডা. হাসিময় হাজরা পেশাগত জীবনে ছিলেন অত্যন্ত সৎ এবং নিষ্ঠাবান। তাঁর সদাহাস্য মধুর ব্যবহার দিয়ে তিনি নিজের নামের স্বার্থকতার প্রমাণ রেখেছিলেন। ডাঃ হাজরা ঢাকা মেডিকেল কলেজে ছাত্রাবস্থায় প্রগতিশীল আন্দোলনের সাথে যুক্ত হন। ১৯৬৯ এর প্রবল গণ আন্দোলনের সময় আদমজী শ্রমিক এলাকায় শ্রমিকেরা সান্ধ্য আইন ভঙ্গ করে বেরিয়ে এসেছিলো। তাদের উপর বর্বর পাকবাহিনী নির্বিচারে গুলি চালায়। ডা. হাসিময় হাজরা তখন ঢাকা মেডিকেল কলেজের শেষ বর্ষের ছাত্র। কলেজের অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে বেরিয়ে পড়েন আদমজী এলাকায় আহত শ্রমিকদের বাঁচানোর উদ্দেশ্যে। একইভাবে ছুটে গিয়েছিলেন ৬৯-এর ডেমরার সাইক্লোনের সময়। ২৫ মার্চের পর তিনি অত্যন্ত গোপনভাবে মুক্তিযুদ্ধের সাথে সংযুক্ত হন।

২৫শে মার্চের পর ড. হাসিময়কে অনেকেই বারবার দেশ ছেড়ে ভারতে চলে যেতে বলেছিলেন। কিন্তু তিনি একটুও রাজি হননি। ১৯৭১ সালে ২৫ মে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী তাঁকে ধরে নিয়ে যায়। এরপর আর কোন খোঁজ কখনো পাওয়া যায়নি তাঁর। আমাদের দেশ হারায় সবসময় হাসিমুখের এক দেশপ্রেমিককে।