884
page-template,page-template-full_width,page-template-full_width-php,page,page-id-884,page-child,parent-pageid-646,stockholm-core-1.0.0,select-theme-ver-5.0.6,ajax_fade,page_not_loaded,wpb-js-composer js-comp-ver-5.5.5,vc_responsive

ডা. আমিনউদ্দিন

জন্ম – ১৯৩৬

“স্বাধীনতার শক্তিশালী রসায়ন যাঁর প্রতিটি রক্তবিন্দুতে”

ডাঃ আমিনউদ্দিনের জন্ম ১৯৩৬ সালে পশ্চিমবঙ্গের বীরভূম জেলার শিউড়িতে। ভারত বিভাগের পর ৬ষ্ঠ শ্রেণীতে পড়ার সময় তিনি চাচার সাথে চলে আসেন পাবনায়। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৫৮ সালে রসায়নশাস্ত্রে বি.এস.সি ও ১৯৬০ সালে এম.এস.সি. পাশ করেন। ১৯৬১ সালে সায়েন্স ল্যাবরেটরিতে গবেষক হিসাবে যোগদান করেন। ১৯৬৪ সালে বিভাগীয় বৃত্তি লাভ করে উচ্চশিক্ষার জন্য লন্ডন যান। ১৯৬৮ সালে ইউনিভার্সিটি অফ ব্র্যাকফোর্ড থেকে পি.এইচ.ডি ডিগ্রি লাভ করেন।

ঐ বছরই তিনি দেশে ফিরে সায়েন্স ল্যাবরেটরিতে উচ্চতর গবেষণা কর্মকর্তা হিসেবে যোগ দেন। তরুণ বিজ্ঞানী ডা. আমিনউদ্দিন ছিলেন রাজনীতি সচেতন। পশ্চিম পাকিস্তানের মার্কিনী  লেজুড়বৃত্তি ও বাঙালিদের প্রতি বৈষম্যে বরাবরই তিনি ছিলেন সোচ্চার। মার্চের অসহযোগ আন্দোলনে সায়েন্স ল্যাবরেটরি থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করায় তাঁর ছিল সক্রিয় অংশগ্রহণ। মুক্তিযোদ্ধা চলাকালে তিনি বিভিন্ন জায়গা থেকে চাঁদা সংগ্রহ করে মুক্তিযোদ্ধাদের সরবরাহ করতেন।

১৪ই ডিসেম্বর ভোরবেলা, হানাদার বাহিনী সকাল সোয়া আটটার দিকে জিপে চেপে কলোনীতে ঢুকে। ডঃ আমিনউদ্দিনের ফ্ল্যাটে কড়া নাড়ে, প্রচন্ড ক্ষিপ্রতায় টেনে-হিচড়ে চোখ বেঁধে ডা. আমিনউদ্দিনকে তারা নিয়ে যায়। তাঁর লাশ আর খুঁজে পাওয়া যায়নি।

চোখ বাঁধা ডাঃ আমিনউদ্দিনের চোখে যে অন্ধকার ছিল, সেই অন্ধকারে হারিয়ে গেছেন তিনি। আমাদের প্রতিটি আলোর উৎসবে তিনি থাকবেন জেগে।