Martyred Intellectuals | ডা. আজহারুল হক
866
page-template,page-template-full_width,page-template-full_width-php,page,page-id-866,page-child,parent-pageid-646,ajax_fade,page_not_loaded,,select-theme-ver-4.6,wpb-js-composer js-comp-ver-5.5.5,vc_responsive

ডা. আজহারুল হক

জন্ম – ১৯১৯

“একজন সিংহহৃদয় সূর্যসন্তান”

ডা. আজহারুল হক ২ মার্চ, ১৯৪০ সালে ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর আদিনিবাস পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলায়। বাবা জহুরুল হক ছিলেন ঢাকা সেন্ট্রাল জেলের জেলার এবং মা ফাতেমা খাতুন গৃহিণী। মাত্র ২ বছর বয়সেই তিনি বাবাকে হারান। আজহারুল হক সিলেট মেডিকেল স্কুল থেকে ১৯৬৭ সালে এলএমএফ ডিগ্রি এবং স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ থেকে ১৯৬৮ সালে এমবিবিএস ডিগ্রি অর্জন করেন। খুব ভালো রেজাল্ট করেছিলেন তিনি।

কর্মজীবনে ডা. আজহারুল হক ঢাকা মেডিকেল কলেজের সহকারী সার্জন ছিলেন। ২৫ মার্চের কালরাতের পর ২৬ মার্চ সকাল থেকে তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজে আহত মানুষদের চিকিৎসায় নিয়োজিত ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধের পুরো সময়টুকুতেই তিনি আহত, গুলিবিদ্ধ, অসুস্থ মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা করেছিলেন। কিন্তু একসময় তাঁর এই কর্মকান্ডের কথা আল-বদররা জেনে ফেলে।

১৫ নভেম্বর তিনি তাঁর বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে হাসপাতালে যাওয়ার জন্য অপেক্ষা করছিলেন। সেখান থেকেই তাঁকে ধরে নিয়ে যাওয়া হয়। পরদিন প্রচন্ড ক্ষত-বিক্ষত অবস্থায় তাঁর মরদেহ পাওয়া যায় ঢাকার নটরডেম কলেজের সামনে কালভার্টের নিচে। এভাবেই জাতি হারায় একজন সিংহ হৃদয় সূর্যসন্তানকে।